জীবন বাজি রেখে বাসভর্তি যাত্রীর প্রান বাঁচালেন পুলিশ সার্জেন্ট-মুহিব্বুল্লাহ মুহিব

newsline24newsline24
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:54 PM, 28 February 2024

আব্দুস সবুর ঢাকাঃ রাজধানী ঢাকার সায়েদাবাদ এলাকাতে সকাল শিফটে কর্তব্য পালন করছিলেন পুলিশ সার্জেন্ট মুহিব্বুল্লাহ মুহিব ও সঙ্গীয় ফোর্স।পাশেই রেলক্রসিং,সেই রেলক্রসিং এর রেললাইনে বিকল গাড়ি অপসারণ করে কমপক্ষে ৪০-৫০ জন মানুষের প্রাণ বাঁচালেন পুলিশ সার্জেন্ট মুহিব্বুল্লাহ মুহিব,সঙ্গীয় ফোর্স ও উপস্থিত স্থানীয়রা।২৮-শে ফেব্রুয়ারী-বুধবার সকাল পৌনে দশটার সময় ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জগামী কমিউটার ট্রেনটি কমলাপুর ত্যাগ করার পরে রাজধানীর সায়েদাবাদ রেলক্রসিং এ পৌঁছার কিছু সময় আগে শিকড় পরিবহনের একটি গাড়ির ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়।উক্ত শিকড় পরিবহন বাসটিতে ৪০-৫০জন যাত্রী নিয়ে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে মিরপুরের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলো,যাত্রীভর্তি বাসটি সায়েদাবাদ রেলক্রসিং এর উপরে পৌঁছালে হঠাৎ করেই ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়।ড্রাইভার ও যাত্রীরা দিশেহারা হয়ে পড়ে শুরু করে আহাজারি ও কান্নাকাটি।উল্লেখিত ঘটনাস্থলে এলাকায় দায়িত্ব পালন করছিলেন পুলিশ সার্জেন্ট মুহিব্বুল্লাহ মুহিব,দায়িত্বরত পুলিশ সার্জেন্ট এর উপস্থিত বুদ্ধি ও সিদ্ধান্তে আশপাশের পথচারী লোকজনের সহায়তায় মুহূর্তের মধ্যেই গাড়িটি রেল লাইন থেকে অপসারণ করা হয়।তার ঠিক ৩০ সেকেন্ড পরেই নারায়ণগঞ্জগামী ট্রেনটি সায়েদাবাদ রেলক্রসিং অতিক্রম করে।অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যায় ৪০-৫০জন মানুষের প্রান।দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় বাসটি ও বাসের যাত্রীরা।প্রতক্ষ্যদর্শী উপস্থিত সাইফুল নামের এক রিকশা চালকের সাথে কথা বললে তিনি বলেন,বাসটি আটকাইয়া যাওয়ার পরে সার্জেন্ট স্যার যেইভাবে তাড়াতাড়ি কইরা বাসটারে সরাইলো,বিশ্বাসই হয় না!আল্লাহ স্যারকে বাঁচায় রাখুক।এ বিষয়ে পুলিশ সার্জেন্ট মুহিব্বুল্লাহ মুহিব এর সাথে কথা বললে তিনি ঢাকা নিউজকে বলেন,আমি সকাল থেকেই ডিউটি করতেছিলাম,হঠাৎ করেই দেখলাম রেল বার পড়ে গেছে!কিন্তুু রেল লাইনের উপরে যাত্রীবোঝাই বাস।কোনোদিক চিন্তা না করেই তৎক্ষনাৎ সিদ্ধান্ত নিয়ে আমার সঙ্গীয় ফোর্স এবং উপস্থিত স্থানীয় সাধারণ মানুষের সহায়তায় বাসটিকে পেছনে ঠেলে দেই।এতোগুলো মানুষের জীবন রক্ষা করে তাঁদের উপকারে আসতে পেরে ভালো লাগছে।পুলিশ হিসেবে মানুষের সেবা করাই আমাদের ব্রত,আমি আমার কাজটি করতে পেরেছি-মানুষের আসন্ন বিপদ থেকে রক্ষা পেয়েছে-এতেই আমার শান্তি। আল্লাহর শুকরিয়া।

আপনার মতামত লিখুন :